ফাইজারের ভ্যাকসিন নিয়ে ২৩ নাগরিকের মৃত্যুর দাবি নরওয়ের

covid 19 vaccine

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস থেকে পরিত্রাণ পেতে বিশ্বজুড়ে যখন ভ্যাকসিন নেওয়ার তোড়জোড় চলছে, তখন প্রকাশ্যে এল এক দুঃসংবাদ।

বহুল আলোচিত ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানি উদ্ভাবিত করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণের পর নরওয়ের ২৩ জন নাগরিকের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির টিকা গ্রহণের পর যে ২৩ জন নরওয়ের নাগরিক মারা গেছে তাদের ১৩ জনের বয়স ৮০ বছরের বেশি। টিকা গ্রহণের পর তাদের জ্বর-সহ আরও বেশ কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। নরওয়ের মেডিসিন এজেন্সি জানিয়েছে, ধারণা করা হচ্ছে ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির এই টিকা বয়স্ক মানুষের জন্য মারাত্মক রকমের প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।
এজেন্সির মেডিকেল ডিরেক্টর স্ট্রেইনার ম্যাডসেন সাংবাদিকদের বলেছেন, এই ঘটনার পর এখন ডাক্তারদের বিবেচনায় নিতে হবে যে, কাকে এই ভ্যাকসিন দেওয়া হবে আর কাকে দেওয়া হবে না।

নরওয়ের ইনস্টিটিউট ফর পাবলিক হেলথ বলছে, এই টিকা গ্রহণের পর ২৩ জনের মৃত্যুর ঘটনার মধ্যদিয়ে এই ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে যে, ফাইজার-বায়োনটেক কোম্পানির ভ্যাকসিন গ্রহণের পর সামান্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াও মারাত্মক পরিণতি বয়ে আনতে পারে। সূত্র: দ্য সান, নিউ ইয়র্ক পোস্ট, এক্সপ্রেস ইউকে, ফ্রি প্রেস জার্নাল, বিজনেস টুডে ও ইন্ডিয়া টুডে