পিয়নের ৫০০ কোটি টাকা: অনুসন্ধানে দুদক

dudok-logo

মো. আলী প্রকাশ নামে কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক পিয়নের পাঁচ শতকোটি টাকার সম্পদের অনুসন্ধানে নেমেছে দুর্নীতি দমন কমিশন-দুদক।

দুদকের একটি সূত্রে জানা যায়, মো. আলী প্রকাশ কক্সবাজারের পিএমখালীর দরিদ্র নৌকার মাঝি ইলিয়াস প্রকাশ ওরফে কালু মাঝির ছেলে। বাবা নৌকার মাঝি হলেও আলী প্রকাশ মানুষরে বাসায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করতেন।

জানা যায়, কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলীর বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতেন আলী প্রকাশ। ২০১০ সাল পর্যন্ত সেখানেই গৃহকর্মীর কাজ করেছেন তিনি। ১৯৯৪ সালে ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আলীর বাসায় কাজ শরু করেন। দীর্ঘদিনের বিশ্বস্থতার কারণে বাড়ির কেয়ারটেকার পাশাপাশি কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি অফিসে পিয়নের কাজও দিয়েছেলেন তাকে। সেই পিয়ন মো. আলী প্রকাশ ১০ বছরের ব্যবধানে এখন প্রায় ৫০০ কোটি টাকার মালিক।

দুদকের কাছে তার বিষয়ে করা অভিযোগ থেকে জানা যায়, কক্সবাজার শহরের প্রাণকেন্দ্রে আলী প্রকাশ ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে তৈরি করেছেন বিলাসবহুল দুটি বাড়ি। এছাড়া চট্টগ্রাম শহরে তার বেশ কিছু ফ্ল্যাট ও একটি বিলাসবহুল বাড়ি রয়েছে। কক্সবাজার বিমানবন্দর সড়কের পাশেও রয়েছে চারতলা বিলাসবহুল বাড়ি। এছাড়া শত বিঘাজমির পাশাপাশি রয়েছে নামে -বেনামে অঢেল সম্পদ।

দুদকের উর্দ্ধতন এক কর্মকর্তা বলেন, পিয়ন মো.আলীর একটি অভিযোগ কমিশনে এসেছে অনেক আগেই। যাচাই-বাছাই করার পর এই বিষয়ে ইতোমধ্যে তদন্তে নেমেছে দুদক। তদন্ত সম্পন্ন হলে এসব বিষয় নিয়ে কমিশন থেকে হয়তো প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।