দুদকের সহকারী পরিচালকের ঘুষ দাবি, অডিও রেকর্ড দাখিলের নির্দেশ হাইকোর্টের

high-court

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ আলমগীর হোসেনের ঘুষ নেওয়ার অডিও রেকর্ড এবং ফোন কললিস্ট আগামী ১৪ মার্চের মধ্যে দাখিল করতে বিটিআরসি ও গ্রামীন ফোনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি মহি উদ্দিন শামীমের হাইকোর্ট বেঞ্চ রবিবার এ আদেশ দেন। দুদকের মামলার আসামি ঢাকা জেলার সাবেক সাব রেজিস্ট্রার আব্দুল কুদ্দুস ও তার স্ত্রী মাহিনুর বেগমের করা এক রিট আবেদনে এ আদেশ দেন আদালত।

আদালতে আবেদনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন কামাল হোসেন। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মো. আসিফ হাসান। দুদকের সহকারি পরিচালক আলমগীর হোসেনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আবদুর রশিদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক জানান, দুদকের একটি মামলায় তদন্ত কর্মকর্তা আলমগীর হোসেন তদন্ত করার সময় আসামিপক্ষের কাছে অনৈতিকভাবে টাকা দাবি করেন। এ কারনে ওই তদন্ত কর্মকর্তা পরিবর্তনের জন্য গত ১ ফেব্রুয়ারি দুদক চেয়ারম্যান বরাবর আবেদন করেন মামলার আসামি ঢাকা জেলার সাবেক সাব রেজিস্ট্রার আব্দুল কুদ্দুস এবং তার স্ত্রী। তাদের এ আবেদনে দুদক সাড়া না দেওয়ায় হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন তারা।

এ রিট আবেদনে গতকাল রিট আবেদনকারীর কথোপকথনের অডিও রেকর্ড দাখিলের দিন ধার্য ছিল। কিন্তু তিনি তা দাখিল করতে পারেননি। আদালতে বলেছেন যে ওই রেকর্ড মুছে গেছে। এসময় আদালত আলমগীর হোসেনের ঘুষ নেওয়ার অডিও রেকর্ড এবং ফোন কললিস্ট দাখিল করতে বিটিআরসি ও গ্রামীন ফোনকে নির্দেশ দেন।