আদালতে জবানবন্দির পর ত্ব-হাসহ সঙ্গীরা পরিবারের কাছে

toha

আদালতে জবানবন্দির পর আলোচিত ইসলামি বক্তা আবু ত্ব-হা মুহাম্মদ আদনান ও তার দুই সঙ্গীকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ আগে তাকে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয়। সেখানে তিনি জবানবন্দি দেন।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টায় রংপুর মহানগর আমলী আদালতের বিচারক কে এম হাফিজুর রহমানের আদালতে জবানবন্দি শেষে আইনজীবী সোলায়মান আহমেদ সিদ্দিকী বাবুর জিম্মায় তারা বাড়ি ফেরেন।

নিখোঁজের আট দিন পরে অবশেষে আদালত হয়ে বাড়ি ফিরলেন আলোচিত ইসলাম বিষয়ক বক্তা আবু ত্ব-হা মুহম্মদ আদনান এবং তার দুই সঙ্গী আব্দুল মুহিত, মোহাম্মদ ফিরোজ। এ সময় তারা সাংবাদিককের কোনো প্রশ্নের জবাব দেননি। আদালত চত্বরে এসময় তিন পরিবারের স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

রংপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের ক্রাইম ডিভিশনের উপ-পুলিশ কমিশনার আবু মারুফ হোসেন শুক্রবার জানান, তাদের তিনজনকে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তোলা হয়। আদালতে জবানবন্দি দেওয়ার পর তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

পুলিশের এ কর্মকর্তা আরও জানান, ত্ব-হা নিখোঁজের ঘটনায় করা সাধারণ ডায়েরির (জিডি) আলোকে তিনজনকে আদালতে তোলা হয়।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুন বিকাল ৪টার দিকে তিন সঙ্গীসহ আদনান রংপুর থেকে ভাড়া করা একটি গাড়িতে ঢাকায় রওনা দেন। এরপর রাত ২টা ৩৬ মিনিটে প্রথম স্ত্রী হাবিবা নূরের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা হয় আদনানের। তিনি সাভার যাচ্ছেন বলেই জানান স্ত্রীকে। তারপর থেকেই তার ফোন বন্ধ থাকায় আর যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। তারপর তারা নিখোঁজ হন।

নিখোঁজের সময় ত্ব-হার সঙ্গে আব্দুল মুহিত, মোহাম্মদ ফিরোজ ও গাড়িচালক আমির উদ্দিন ফয়েজ ছিলেন। ওই রাত থেকে সবার মোবাইল ফোনই বন্ধ ছিল। এ ঘটনায় ১১ জুন বিকালে রংপুর মহানগরীর কোতোয়ালি থানায় ত্ব-হার খোঁজ চেয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছিলেন তার মা আজেদা বেগম।

পরে শুক্রবার তার খোঁজ পাওয়া যায়। এদিন বিকালে ত্ব-হাকে রংপুর মহানগরীর আবহাওয়া অফিস মাস্টার পাড়ার তার প্রথম স্ত্রীর বাসা থেকে বের করে মহানগর পুলিশের ডিবি কার্যালয়ে নেয় পুলিশ। রাতেই তাকে আদালতে তোলা হয়।