ভয়াবহ ধূলিঝড়ের কবলে ইরাক, হাসপাতালে ভর্তি ৫০০০

আবারও ভয়াবহ ধূলিঝড়ের কবলে পড়েছে ইরাক। এ নিয়ে এক মাসের মধ্যে সাত বার ধূলিঝড়ের কবলে পড়ল ইরাক। বৃহস্পতিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইফ আল-বাদর এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন,

ধূলিঝড়ে রাজধানী বাগদাদে অন্তত একজন নিহত এবং কমপক্ষে পাঁচ হাজার মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এছাড়া কয়েক ঘণ্টা ধরে বিমানের উঠানামা বন্ধ থাকে।

দেশটিতে দফায় দফায় এ ধরনের ধূলিঝড়ের কারণে বিপুল সংখ্যক লোকজন অ্যাজমার মতো শ্বাস-প্রশ্বাস জনিত রোগে ভুগছেন। এছাড়া যে সমস্ত বৃদ্ধ লোক হার্টের সমস্যায় ভুগছেন তাদের জন্য এই ধূলিঝড় বাড়তি ভোগান্তির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ইরাকের স্বাস্থ্য বিভাগের মুখপাত্র বলেন, ঝড়ের ফলে যে হাজার হাজার মানুষ হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তাদের বেশিরভাগই প্রাথমিক বা সামান্য চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল থেকে চলে গেছেন।

গতকাল যখন ধূলিঝড় হয় তখন বাগদাদ এবং পশ্চিমাঞ্চলীয় আনবার প্রদেশসহ ছয়টি প্রদেশ ধুলোবালির চাদরে ঢেকে যায়।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মধ্যপ্রাচ্যে এ ধরনের ধূলিঝড়ের প্রবণতা বেড়েছে। নদীর পানির অত্যধিক ব্যবহার, বেশি বেশি বাঁধ নির্মাণ এবং বন-জঙ্গল উজাড়ের কারণে এই সমস্যা তীব্রতর হচ্ছে।