ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে রাশিয়ার অন্তত ৫ বছর সময় লাগবে

ইউক্রেন যুদ্ধে রুশ সেনাবাহিনীর যে ক্ষতি হয়েছে সেটি কাটিয়ে উঠতে অন্তত পাঁচ বছর সময় লাগবে বলে মন্তব্য করেছেন ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওলেক্সি রেজনিকভ।

শুক্রবার এক বার্তায় ইউক্রেনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। খবর আলজাজিরার।

ওলেক্সি রেজনিকভ বলেন, ন্যাটোর গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী, রুশ বাহিনীর ট্যাংক, কামান, সাঁজোয়া কর্মী বাহক এবং সেনাদের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। রুশ ফেডারেশনের নিয়মিত সশস্ত্র বাহিনীর পক্ষে এই ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে পাঁচ বছর সময় লেগে যেতে পারে।

এদিকে জার্মানির অর্থমন্ত্রী রবার্ট হ্যাবেক বলেছেন, রাশিয়ার পরাজয়ের মধ্য দিয়ে ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের ইতি ঘটবে। জার্মান সংবাদমাধ্যম ডিপিএর সঙ্গে আলাপকালে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

রবার্ট হ্যাবেক বলেন, ইউক্রেনের প্রতি পশ্চিমা দুনিয়ার সমর্থনের ফলে দেশটিতে রুশ আগ্রাসন রাশিয়ার সামরিক পরাজয়ের মধ্য দিয়ে শেষ হবে। তার ভাষায়, ‘কেউ ভাবতে পারেনি যে, ২০২২ সাল এভাবে শেষ হবে।’

তিনি বলেন, পুতিন এই যুদ্ধে হেরে যাচ্ছেন। কারণ ইউক্রেনের সেনাবাহিনী যুক্তরাষ্ট্র, ন্যাটো ও ইউরোপ থেকে অস্ত্রশস্ত্র পাচ্ছে। তারা দক্ষতা ও বীরত্বের সঙ্গে সেগুলো ব্যবহার করছে।

ওদিকে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রসহ ইউরোপের দেশগুলো থেকে ইউক্রেনের জন্য প্রাণঘাতী অস্ত্র ও গোলাবারুদ আসা ঠেকাতে কাজ করছে তার দেশ। তিনি বলেন, আমরা লক্ষ্য করেছি পশ্চিমা দেশগুলো থেকে আরও আধুনিক অস্ত্র পাচ্ছে ইউক্রেন। কীভাবে এই অস্ত্র ও গোলাবারুদের চালান বন্ধ করা যায় এ বিষয়ে পেশাদার সিদ্ধান্ত নেব আমরা।

উল্লেখ্য, চলতি বছর ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে কথিত বিশেষ সামরিক অভিযান শুরু করে রাশিয়া। চলমান এই রুশ আগ্রাসনে ইতোমধ্যেই কয়েক হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে খারকিভ, খেরসন, দোনবাস, জাপরিঝিয়াসহ ইউক্রেনের বিভিন্ন শহর।