বিপৎসীমার উপরে বইছে তিস্তার পানি

river

ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে ফের বিপৎসীমার উপরে উঠে গেছে তিস্তার পানি। ফলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তার পানি বিপৎসীমার ১০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এছাড়া তিস্তা ব্যারেজ এলাকাতেও পানি বিপৎসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে রংপুর, লালমনিরহাট, কুড়িগ্রামে নিম্নাঞ্চল নতুন করে প্লাবিত হয়েছে।

বর্ষার শুরু থেকেই পাহাড়ি ঢলে এবার তিস্তা পাড়ে ভাঙনের দেখা দেয়। গত কয়েকদিন এই ভাঙন আরও বেড়েছে। তার ওপর বন্যা পরিস্থিতি তিস্তাপাড়ের মানুষদের হতভাগা করে তুলেছে।

পাউবোর বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভুঁইয়া জানিয়েছেন, শুক্রবার সকাল নাগাদ তাদের পর্যবেক্ষণাধীন বিভিন্ন নদ-নদীর ১০১টি পয়েন্টের মধ্যে ৫৩টিতে পানির সমতল বেড়েছে। কমেছে ৫২টি পয়েন্টের পানির সমতল।

তিনটিতে অপরিবর্তিত আছে, আর একটি পয়েন্টের পানির সমতলের তথ্য সংগ্রহ এখনো শুরু হয়নি। পাউবো জানিয়েছে, যমুনা নদ-নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে, যা শনিবার পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে।

গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল আছে। শনিবার নাগাদ গঙ্গা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পেতে পারে। অপরদিকে পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল থাকতে পারে।

দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীসমূহের পানি সমতল হ্রাস পাচ্ছে, যা শনিবার নাগাদ স্থিতিশীল হতে পারে।