খুলনায় করোনায় আরো ১৩ জনের মৃত্যু

corona
ফাইল ছবি

খুলনার চার হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার ১৮ জুলাই সকাল ৮টা থেকে সোমবার ১৯ জুলাই সকাল ৮টা পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাদের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে করোনায় ১২ জন এবং উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনা ডেডিকেটেড করোনা হাসপাতালে সাতজন, শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতালের করোনা ইউনিটে দুজন, জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে একজন এবং গাজী মেডিকেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

খুলনার করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালের ফোকাল পার্সন ডা. সুহাস রঞ্জন হালদার জানান, হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ছয়জন ও উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

করোনায় মৃতরা হলেন- খুলনার খালিশপুরের ফরিদ (৫৮), পাইকগাছার জাহানারা (৭৫), মাদারীপুরের সাহিদা বেগম (৭০), ফকিরহাটের তৌহিদুজ্জামান (৫০), যশোর বাঘারপাড়ার সেলিনা (৫০) ও নড়াইলের কালিয়ার দাউদ হোসেন (৭০)। এ ছাড়া উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৬৩ জন। যার মধ্যে রেড জোনে ৮৭ জন, ইয়ালো জোনে ৩৭ জন, আইসিইউতে ১৯ জন এবং এইচডিইউতে ২০ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ২৩ জন। আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩১ জন।

খুলনার শহীদ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. প্রকাশ দেবনাথ জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- খুলনা মহানগরীর দোলখোলা এলাকার সাজ্জাদুল কবির (৫৭) ও দৌলতপুর পাবলা মধ্যপাড়ার খাদিজা বেগম (৫১)।

হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি রয়েছেন ৪৩ জন। তার মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন চারজন আর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুজন।

খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. কাজী আবু রাশেদ জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নগরীর লবনচরা এলাকার রিজিয়া বেগমের (৬২) মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৬২ জন। এর মধ্যে ২৯ জন পুরুষ ও ৩৩ জন নারী। গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১২ জন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ জন।

বেসরকারি গাজী মেডিকেল হাসপাতালের স্বত্বাধিকারী ডা. গাজী মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তারা হলেন- নগরীর খালিশপুরের পিয়ারা মজুমদার (৭১), একই এলাকার বকুল রানী দত্ত (৭২) ও যশোর সদরের জেলেমুন্নেছা (৭০)। সূত্র : ঢাকাপোস্ট।