যশোরে অবৈধ অস্ত্র তৈরীর কারখানার সন্ধান

Jessore map

জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি পুলিশ অবৈধ অস্ত্র তৈরীর কার খানার সন্ধান লাভ করেছে। এসময় অবৈধ অস্ত্র তৈরীর কারখায় হানা দিয়ে শাহাদত হোসেন নামে এক অস্ত্র কারবারিকে গ্রেফতার করেছে। সে যশোর শহরের শংকরপুর চোপদার পাড়া এলাকার শাহাজাহান দেওয়ানের ছেলে। এসময় পুলিশ অস্ত্র তৈরীর কারখানা থেকে একটি কাঠের বাটযুক্ত রিভলবার গান,৪ রাউন্ড রিভলবারের গুলি ও ১ রাউন্ড ওয়ান স্যুটারগানের গুলি, দেশীয় পিস্তলের একটি লোহার বডি (রিসিবার),১টি লোহার চ্যানেল,১টি লোহার নল,১টি লোহার ট্রিগার,১টি ফায়ারিং পিন লোহার,২টি স্প্রি,১টি লোহার ম্যাগাজিন, পিস্তল তৈরীর একটি স্টিলের ফর্মা,১টি শ্যান মেশিন যা করাতযুক্ত,১টি শ্যান মেশিন,২৬টি লোহার তৈরী স্প্যান্স বার ও ১টি বৈদ্যুতিক ড্রিল মেশিন। এ নিয়ে জেলা গোয়েন্দা শাখা ডিবি’র গত কয়েক মাসের মধ্যে অবৈধ অস্ত্র তৈরীর কারখানা সন্ধান লাভ দ্বিতীয়।
এর আগে শহরের রাঙ্গামাটি গ্যারেজ এলাকার একটি মার্কেটে অভিযান চালিয়ে অবৈধ অস্ত্র তৈরীর কারখানায় হানা দিয়ে বিপুল পরিমানের অস্ত্র সরাঞ্জামসহ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছিল।

জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের অফিসার ইনচার্জ রুপন কুমার সরকার জানান, জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)তে কর্মরত এসআই শাহিনুর রহমানসহ একদল পুুলিশ সোমবার ২৭ মার্চ রাত আড়াইটার সময় শহরের রেলরোডস্থ রাসেল চত্বরে অবস্থানকালে গোপন সূত্রে জানতে পারেন শংকরপুর চোপদারপাড়া গ্রামের শাহাদত হোসেনের মেশিন লেদঘরে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার জন্য নিজস্ব উপায়ে অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র তৈরী করছে।

উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে পৌছালে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সেখান থেকে শাহাদত হোসেন দৌড়ে পালাবার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক তার লেদ ঘরে অভিযান চালিয়ে উল্øেখিত অস্ত্র তৈরীর সরাঞ্জাম ও গুলি উদ্ধার করে। পরে তার বিরুদ্ধে মঙ্গলবার ২৮ মার্চ সকালে কোতয়ালি থানায় অস্ত্র আইনে মামলা দেন। শাহাদত হোসেনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়।