নাগরিকত্ব সংশোধন আইন : নীরবতা ভাঙলেন প্রিয়াংকা চোপড়া

priyanka chopra

নাগরিকত্ব সংশোধন আইন নিয়ে নীরবতা ভাঙলেন বলিউডের শক্তিধর অভিনেত্রী প্রিয়াংকা চোপড়া। দিল্লিতে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া এবং আলিগড় মুসলিম ইউনিভার্সিটির প্রতিবাদী শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে পুলিশের দমনপীড়নের নিন্দা জানিয়েছেন তিনি।

প্রিয়াংকা বলেছেন, একটি উন্নত গণতন্ত্রে শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকারীদের বিরুদ্ধে সহিংসতা অন্যায়। ওই আইনের বিরুদ্ধে এরই মধ্যে বলিউডের অনেক অভিনেতা অভিনেত্রী তাদের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। তাদের অনেকেই প্রতিবাদী জনতার বিরুদ্ধে পুলিশি অ্যাকশনের বিরোধিতা করে নিন্দা জানিয়েছেন। তাদের সঙ্গে সর্বশেষ রোববার রাতে যুক্ত হয়েছেন ৩৭ বছর বয়সী অভিনেত্রী ও সাবেক বিশ্ব সুন্দরী প্রিয়াংকা চোপড়া। ভারতের সরকারি বার্তা সংস্থা পিটিআই’কে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন এনডিটিভি।

এনডিটিভি’র খবরে বলা হয়, নাগরিকত্ব সংশোধন আইনের প্রতিবাদে জামিয়া মিলিয়া ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করছিলেন। কিন্তু ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের চত্বরে পুলিশ প্রবেশের পরই তা সহিংস হয়ে ওঠে। সেখানে শিক্ষার্থীদের বেধড়ক পিটানোর ছবি প্রকাশিত হয়েছে মিডিয়ায়।
এ নিয়ে প্রিয়াংকা চোপড়া জোনাস বলেন, আমাদের স্বপ্ন প্রতিটি শিশুর জন্য শিক্ষা। শিক্ষা হলো এমন একটি বিষয়, যা তাদেরকে স্বাধীনভাবে চিন্তা করতে শক্তিশালী করে থাকে। তারা কথা বলুক- এমন করে আমরা তাদেরকে বড় করে তুলেছি।

টুইট পোস্টে প্রিয়াংকা আরো বলেন, একটি উন্নত গণতন্ত্রে কেউ শান্তিপূর্ণভাবে তার প্রতিবাদ জানালে এবং তার জবাবে সহিংসতা অন্যায়। প্রতিটি কণ্ঠস্বরকে শুনতে হবে। প্রতিটি কন্ঠস্বরই ভারতকে পাল্টে দেয়ার জন্য কাজ করবে একত্রে। এক্ষেত্রে প্রিয়াংকা দুটি হ্যাসট্যাগ ব্যবহার করেন টুইটারের সঙ্গে। তাতে লেখা হয় #হ্যাভ ভয়েস উইল রেইজ। #হ্যাভ ভয়েস মাস্ট রেইজ।
এর আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে প্রবেশ করে তরুণ শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের দমনপীড়নের বিরোধিতা করে, শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করেছেন অনেক অভিনেতা, অভিনেত্রী। তার মধ্যে রয়েছেন ফারহান আখতার, ঋত্বিক রোশন, মোহাম্মদ জিশান আয়ুব, পরিণীতি চোপড়া, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, জাভেদ আখতার, বিশাল ভারদওয়াজ, অনুরাগ কাশ্যাপ, হলিউড অভিনেতা জন কুসাক প্রমুখ।