বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

benapole news

বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচনের দাবিতে এবার আন্দোলনে নামছে পৌর নাগরিকরা। পৌরসভার বর্তমান পরিষদের মেয়াদ শেষ হওয়ার প্রায় ৫ বছর পেরিয়ে গেলেও নির্বাচন না হওয়ায় নাগরিকরা ক্ষুব্দ হয়ে উঠছে। পরিকল্পিতভাবে মামলা দিয়ে ৫ বছর ধরে পৌরসভার নির্বাচন বন্ধ রাখার অভিযোগ করেছেন তারা।

রোববার প্রেসক্লাব যশোরে বেনাপোল পৌরবাসী নামের একটি সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে বেনাপোলের ২১টি সংগঠনের প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলন থেকে খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে নির্বাচনের আয়োজনের জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়। নইলে প্রয়োজনে দাবি আদায়ে রাজপথে আন্দোলনে নামার কথাও বলেন নেতৃবৃন্দ।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বেনাপোল পৌরবাসী সংগঠনের আহ্বায়ক মোস্তাক হোসেন স্বপন বলেন, সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার ৯টি মামলার কারণে ৫ বছর ধরে আটকে আছে যশোরের বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচন। বর্তমান মেয়রের ঈন্ধনে এক মামলা শেষ হওয়ার সাথে সাথে আরেক মামলা দেওয়া হচ্ছে। এসব মামলা কবে নিষ্পত্তি হবে, আর কবে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে, তা কেউ বলতে পারছে না। এ অবস্থায় পৌরসভার নাগরিকরা ক্রমশ হতাশ হচ্ছেন।

তিনি বলেন, ২০০৬ সালে বেনাপোল পৌরসভা প্রতিষ্ঠা লাভের পর ২০১১ সালের ১৩ জানুয়ারি প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই পরিষদের মেয়াদকাল শেষ হওয়ার পর ৫ বছর অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও আর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে না।
তাই অবিলম্বে বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, সীমানা সংক্রান্ত জটিলতার কারণে শুধু বেনাপোল পৌরসভা নয়, দেশের ১৬ টি পৌরসভায় একই ধরনের সমস্যার মধ্যে রয়েছে। সেখানকার নাগরিকরা নাগরিক অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। অন্য দিকে সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছে। এ অবস্থায় সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে সীমানা জটিলতায় নির্বাচন আটকে থাকা পৌরসভা গুলোতে মামলা নিষ্পত্তি না হলেও পুরাতন সীমানায় নির্বাচন নেওয়ার কথা বললেও তা পরবর্তীতে আইন হিসেবে কার্যকর বা বাস্তবায়ন হচ্ছে না।

সংবাদ সম্মেলন থেকে অবিলম্বে বেনাপোল পৌরসভার নির্বাচনের জন্য নির্বাচন কমিশনকে উদ্যোগী হওয়ার আহবান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বেনাপোল পৌরবাসীর যুগ্ম আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা শাহ আলম, সদস্য সচিব মহসীন মিলন, আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ নুরুজ্জামান, প্রফেসর নওশের আলী, শরিফুল আলম, বেনাপোল বাজার কমিটির সভাপতি আজিজুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান বজলুর রহমান, বন্দর শ্রমিক হ্যান্ডলিং ৮৯১’র সভাপতি জানে আলম, শ্রমিক হ্যান্ডলিং ৯২৫ এর সভাপতি রাজু আহমেদ, বেনাপোল পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি এনামুল হক, যশোর জেলা পরিষদের সদস্য ওহিদুজ্জামান প্রমুখ।