কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গ্রুপের সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ২০

nowakhali news

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চাপরাশিরহাট বাজারে আ.লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে গুলিবিদ্ধসহ কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে।

জানা গেছে , শুক্রবার বিকাল ৫টায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। এতে তিন জন গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সাবেক উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সমর্থনে চাপরাশিরহাট বাজারে একটি মিছিল বের করা হয়। একই সময় ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই ও বসুরহাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জার সমর্থকরাও একটি মিছিল বের করে। মিছিল দুটি বাজার প্রদক্ষিণ করার সময় মুখোমুখি হয়, এসময় উভয়পক্ষের কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে প্রায় ২০ নেতাকর্মী আহত হন। আহতদেরকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়।
এদের মধ্যে চার জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায়, তাদেরকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মীর জাহিদুল হক রনি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে দুই পক্ষকে থামানোর চেষ্টা করে। কিন্তু ব্যর্থ হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কয়েক রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছোড়ে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।