অনির্দিষ্টকালের জন্য সুন্দরবনের পর্যটনকেন্দ্র ও সাফারি পার্ক বন্ধ

sundarban

করোনার বিস্তার প্রতিরোধে অনিদির্ষ্টকালের জন্য সুন্দরবনে সব ধরনের পর্যটক প্রবেশ বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। শুক্রবার থেকে এ আদেশ কার্যকর করা হয়েছে। একই সঙ্গে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসকের এক বিজ্ঞপ্তি বলা হয়, সুন্দরবনসহ জেলার সব পর্যটনকেন্দ্র পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

এদিকে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে গাজীপুরের শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কও।

সুন্দরবনের সাতক্ষীরার বুড়িগোয়ালিনী পর্যটকবহনকারী ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি আবদুল আলিম জানান, তাদের ওই এলাকায় ৫ শতাধিক ট্রলার রয়েছে। এর ওপর তাদের ভরণপোষণ চলে। সুন্দরবনে পর্যটক ঢোকা বন্ধ করে দেয়ায় তাদের পরিবার নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে হবে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল জানান, বৃহস্পতিবার এক চিঠিতে শুক্রবার থেকে সব পর্যটককেন্দ্র পরবর্তী ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। করোনা পরিস্থিতি বিস্তার প্রতিরোধে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এদিকে দেশে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় দ্বিতীয়বারের মতো বন্ধ ঘোষণা হলো শ্রীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক। বন বিভাগের নির্দেশে ৩রা এপ্রিল থেকে ১৫ই এপ্রিল পর্যন্ত এটি বন্ধ থাকবে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ও সহকারী বন সংরক্ষক তবিবর রহমান এ তথ্য জানান।

এর আগে পার্কটি ২০২০ সালের ২০শে মার্চ থেকে ৩১শে অক্টোবর পর্যন্ত বন্ধ ছিল। করোনা পরিস্থিতিতে তখন এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল। তিনি বলেন, বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির দ্বিতীয় ঢেউয়ের প্রভাবে বাংলাদেশে প্রতিদিন সংক্রমিত ও মৃত্যুর সংখ্যা লাফিয়ে বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে সরকারের দেয়া ১৮ দফা নির্দেশনা অনুযায়ী জনসমাগমকে নিরুৎসাহিত করা হয়েছে। পরিস্থিতি বিবেচনায় সারা দেশে বন বিভাগের অধীনে থাকা সব পর্যটন স্পট বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয় বন বিভাগ। সে অনুযায়ী শ্রীপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কটিও বন্ধ থাকবে বলে নির্দেশনা এসেছে।