নেপালে বন্যা-ভূমিধসে নিহত ৩৮, নিখোঁজ ২৪

flat

ভারী বর্ষণে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যা এবং ভূমিধসে নেপালে সাত শিশুসহ কমপক্ষে ৩৮ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এছাড়া বন্যা এবং ভূমিধসে আহত হয়েছেন আরও ৫০ জনের বেশি। শনিবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গত ২০ দিনে হতাহতের এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছে।

নেপালের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, বন্যা এবং ভূমিধসে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে ৫১ জন আহত হয়েছেন এবং নিখোঁজ রয়েছেন তিন শিশুসহ ২৪ জন। একই সঙ্গে প্রাকৃতিক এই দুর্যোগে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে এক হাজার ২৫০ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে।

মন্ত্রণালয় বলছে, দেশটির সিন্ধুপালচক জেলায় পাঁচজন, দোতিতে চারজন, গোর্খা ও রোল্পায় তিনজন, চিটাওয়ান, তানহুন, পাইউথান ও রাউতাহাটে দু’জন, ললিতপুর, খোটাং, সপ্তরী, ক্যাভরে, ধাডিং, সিন্ধুলি, জুমলা, আরঘাছাচি, ডাং, পালপা, কাসকি, কালিকোট, পঞ্চথর, বাজহং ও বাজুর জেলায় একজন করে মারা গেছেন।

বন্যা এবং ভূমিধসে দেশটিতে মোট ৭৯০টি বাড়ি ডুবে গেছে। এর পাশাপাশি ৫১৯টি বাড়ি, ৯০টি গোশালা এবং ১৯টি সেতু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে মন্ত্রণালয়।

নেপালের সেনা, পুলিশ এবং সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যরা ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছেন। এ বছরের প্রাকৃতিক এই দুর্যোগে এখন পর্যন্ত ৫ হাজার ১০০ জনের বেশি মানুষ বাস্ত্যুচুত হয়েছেন।সূত্র: পিটিআই।