রাজশাহী মেডিকেলে করোনায় আরো ১২ জনের মৃত্যু

hosital

গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১২ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ৮জন করোনায় এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২১ আগস্ট) সকাল ৯টা থেকে রোববার (২২ আগস্ট) সকাল ৯টার মধ্যে এরা মারা যান। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় রামেকের করোনা ইউনিটে সাতজনের মৃত্যু হয়েছিল।

রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা সংক্রমণে রাজশাহীর চারজন, নাটোরের দুজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন এবং পাবনার একজন প্রাণ হারিয়েছেন।

এ ছাড়া করোনা সংক্রমণের উপসর্গ নিয়ে নওগাঁর দুজন, রাজশাহীর একজন এবং পাবনার একজন মারা গেছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের মরদেহ দাফনের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ পাঁচজন মারা গেছেন হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ)। এ ছাড়া ৩ নম্বর ওয়ার্ডে দুজন এবং ১, ৪, ১৫, ২২ ও ২৯/৩০ নম্বর ওয়ার্ডে একজন করে মারা গেছেন।

পরিচালক আরও জানান, শনিবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ৫১৩ শয্যার রামেক করোনা আইসোলেশন ইউনিটে রোগী ভর্তি ছিলেন ২৪০ জন। এক দিন আগেও এই সংখ্যা ছিল ২৫৪।

বর্তমানে রাজশাহীর ১০৮ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২৭ জন, নাটোরের ৩৪ জন, নওগাঁর ৩০ জন, পাবনার ২৯ জন, কুষ্টিয়ার আটজন, জয়পুরহাটের দুজন এবং বগুড়ার দুজন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

হাসপাতালে করোনা নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১১১ জন। করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ৯৬ জন। করোনা ধরা পড়েনি ভর্তি ৩৩ জনের। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভর্তি হয়েছেন ১৬ জন।

এই এক দিনে হাসপাতাল ছেড়েছেন ২৩ জন। এর আগে শনিবার (২১ আগস্ট) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল ল্যাবে ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

এর মধ্যে করোনা ধরা পড়েছে ২৩ জনের নমুনায়। একই দিনে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে আরও ১৮৭ জনের।

এর মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩২ জনের। পরীক্ষার অনুপাতে রাজশাহীর ১৯ দশমিক ১৯ এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জের ২০ দশমিক ৪৮ শতাংশ নমুনায় করোনা ধরা পড়েছে।