করোনার টিকা পরীক্ষা দ্রুত করতে নতুন পদ্ধতি উদ্ভাবন

corona virus kit

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের টিকার পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ দ্রুত সম্পন্ন করতে নতুন পদ্ধতির উদ্ভাবন করছেন সিঙ্গাপুরের বিজ্ঞানীরা। নতুন এ আবিষ্কারের মাধ্যমে জিনের পরিবর্তন নির্ণয় করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন তারা।

সম্ভাব্য টিকাগুলোর কার্যকারিতা মাত্র কয়েকদিনের মধ্যেই নিশ্চিত হওয়া যাবে বলে সিঙ্গাপুরের ডিউক-এনইউএস মেডিকেল স্কুলের বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন। খবর রয়টার্সের।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক জৈবপ্রকৌশল প্রতিষ্ঠান আর্কটারাস থেরাপেটিকসই সম্ভাব্য এ টিকা সরবরাহ করবে বলে জানা গেছে।

বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, মানবদেহে সম্ভাব্য টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষায় সাধারণত কয়েক মাস লেগে যায়। সে তুলনায় ডিউক-এনইউএস স্কুলের উপায়ে কম সময় লাগবে।

ডিউক-এনইউএস স্কুলের উদীয়মান সংক্রামক রোগ প্রকল্পের উপ-পরিচালক ওই এং ইয়ং বলেন, কোন্ কোন্ জিন সচল কোনটি সচল নয়, জিনগুলোর পরিবর্তনের উপায় জানা যাবে।

এখন পর্যন্ত নভেল করোনাভাইরাসের টিকা কিংবা এর চিকিৎসার কার্যকর কোনো ওষুধ বের হয়নি।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভাইরাসটির প্রতিষেধক পেতে এক বছর বা তার চেয়েও বেশি সময় লাগতে পারে। তবে ওই এং ইয়ং বলছেন, তারা এক সপ্তাহের মধ্যে ইঁদুরের ওপর সম্ভাব্য টিকার পরীক্ষা শুরুর পরিকল্পনা করছেন; চলতি বছরের দ্বিতীয়ভাগে মানবদেহে এ পরীক্ষা হবে।

১৯০টিরও বেশি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ রোগকে ইতিমধ্যে বৈশ্বিক মহামারী ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা-হু। এতে মৃত্যুর সংখ্যা ১৬ হাজার ছাড়িয়েছে।