যশোরে চাঁদাবাজি মামলায় আসামি আটক

jashore map

যশোরে একটি চাঁদাবাজি মামলার আহাদুল ইসলাম নামে আরো এক আসামিকে ডিবি পুলিশ আটক করেছে। আটক আহাদুল ইসলাম সদর উপজেলার বাগেরহাট (তেতুলিয়া) গ্রামের মৃত গোলাপ গাজির ছেলে। আহাদুলসহ এ মামলার ৫ জন আসামির মধ্যে ৪ জনকে আটক করা হলো। এর মধ্যে বিল্লাল ওরফে লগা বিল্লাল পলাতক রয়েছে। আহাদুল আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। অন্যতিন আসামিও আদালতে দোষ স্বীকার করে জবান বন্দি দেয়। অন্য ৩ আসমি হলো বিপ্লব হোসেন (৩২) মহসিন (৪৯) নুরুল হক ওরফে রুবেল ওরফে বেকা রুবেল (৩৫)।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের এস আই আরিফ হোসেন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে শনিবার ভোর আনুমানিক সাড়ে ৫ টার দিকে বাগেরহাট তেতুলিয়া গ্রামস্থ কলেজ মোড় থেকে আহাদুলকে গ্রেফতার করা হয়। আহাদুলসহ এ মামলায় মোট ৪ জন আসামিকে আটক করা হলো। শনিবার আহাদুলকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহাদী হাসানের আদালতে হাজির করা হলে তিনি দোষ স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয়। একই সাথে সহযোগি আসামিদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করে। মামলা তদন্তের স্বার্থে অন্য আসামিদের নাম ঠিকানা প্রকাশ করা হয়নি।

২ লাখ টাকা চাঁদার দাবিতে চাঁচড়ার বানিয়াবহু গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে ফারুক হোসেনের (৩৮) বাড়িতে অজ্ঞাত নামা দুজন লোক একটি চিঠি দিয়ে যায়। চাঁদা না দিলে তাকে প্রাণ নাশ করা হবে, না হলে এলাকা ছাড়া করা হবে। এ ঘটনায় ফারুক হোসেন ৫ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত নামা আরো ২/৩ জনকে আসামি করে কোতয়ালি থানায় মামলা করেন।