যশোরের ঝাঁপা বাঁওড়ে নিখোঁজ ছাত্রে লাশ উদ্ধার

city collage student

যশোরের মণিরামপুরের ঝাঁপা বাঁওড়ে নৌকা থেকে লাফিয়ে সাতার কাটতে নেমে নিখোঁজ কলেজ ছাত্রের লাশ সাড়ে ২৫ ঘন্টা পর উদ্ধার করা হয়েছে৷ শুক্রবার দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে নিখোজ কলেজ ছাত্রকে উদ্ধার করা হয়েছে৷

শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টা থেকে পুনরায় উদ্ধার কাজ শুরু করে যশোরের সিভিল ডিফেন্সের উদ্ধার কর্মী ডুবরীরা৷

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) দুপুর পৌনে ১২টার দিকে সে ডুবে যায়। এর আগে খবর পেয়ে বৃৃৃৃহস্পতিবার দুপুর একটার দিকে মণিরামপুর ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা বাঁওড়ে উদ্ধার কাজে নামেন। কিন্তু তারা কোনো সন্ধান দিতে না পারায় খুলনার ডুবুরি দলকে খবর দেওয়া হয়। বিকেল তিনটা ৩৫ মিনিটের দিকে তিনজন ডুবুরি বাঁওড়ে নামেন।

শোয়েব হাসান যশোর সরকারি সিটি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র। তিনি যশোর শহরের পুরাতন কসবা বিমান বন্দর সড়কের শাহীন হোসেনের ছেলে৷

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে যশোরের একটি কোচিং সেন্টার থেকে ১৮ জন কলেজ শিক্ষার্থী রাজগঞ্জ বাজার-সংলগ্ন ঝাঁপা বাঁওড়ের পশ্চিমপাড়ে পিকনিকে আসেন। এরপর তারা সবাই জেলাপ্রশাসক ভাসমান সেতুর তীর হতে নৌকায় চড়ে বাঁওড় ভ্রমণে বের হন। নৌকাটি রাজগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কাছে পৌঁছুলে শোয়েব, তন্ময় ও রিয়াদ তিনবন্ধু সাঁতার কাটতে নৌকা থেকে পানিতে লাফিয়ে পড়েন। তাদের মধ্যে তন্ময় ও রিয়াদ তীরে উঠে আসলেও নিখোঁজ হন শোয়েব।

মনিরামপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) রফিকুল ইসলাম জানান, শুক্রবার দুপুর ১টা ৩০মিনিটের দিকে পানি থেকে লাশ উপরে উঠানো হয়েছে৷ পরিবারের কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ বিনা ময়না তদন্তে হস্তন্তর করা হচ্ছে৷