যশোরে ফুসলিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় কিশোরী অন্তঃসত্ত্বা, লম্পট আটক

jkrgca news

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় ১৫ বছরের এক কিশোরী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় নুর ইসলাম গাজী নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ লম্পট নুর ইসলাম গাজীকে (৬৫) আটক করে।

নুর ইসলাম গাজী যশোরের মনিরামপুর উপজেলার হরেরগাতি গ্রামের বাসিন্দা। ধর্ষনের ঘটনায় বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) ওই কিশোরীর পিতা ঝিকরগাছা থানায় মামলা করেন।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, সাত মাস আগে ওই কিশোরীকে নুর ইসলাম গাজী ফুসলিয়ে বাড়ির পাশে শওকত মোহরির কাঁঠাল বাগানে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য ভয়ভীতি দেখায়। এ ঘটনার পরেও প্রলোভন দেখিয়ে একাধিকবার কিশোরীকে প্রায় তিনি ধর্ষণ করে। সম্প্রতি কিশোরীর শারীরিক গঠনের পরিবর্তন দেখা দিলে সে ঘটনা খুলে বলে। এ ঘটনায় কিশোরীর পিতা বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) থানায় মামলা করেন। পুলিশ ওই রাতেই লম্পট নুর ইসলাম গাজীকে আটক করে ।

কিশোরীর পিতা জানান, লম্পট নুর ইসলাম গাজী পূর্বেও গ্রামে এ জাতীয় ঘটনা ঘটিয়েছে।

থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মেজবাহউদ্দীন সাংবাদিকদের জানান, কিশোরী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আসাামী নুর ইসলাম গাজীকে শুক্রবার জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট মামুনুর রশিদের আদালতে হাজির করা হলে তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় জবান বন্দিতে ধর্ষনের কথা স্বীকার করেন। পরে নুর ইসলাম গাজীকে জেল পাঠানো হয়।