যশোরের ঝিকরগাছায় বৃদ্ধার জমি লিখে নেওয়ার অভিযোগ পুতাছেলের বিরুদ্ধে

jkr news

যশোরের ঝিকরগাছার শংঙ্করপুর ইউনিয়নের বাকুড়া গ্রামের সাইফুল ইসলামেরর বিরুদ্ধে বৃদ্ধা দাদির জমি জোর করে লিখে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। বাকুড়া পাকা রাস্তার সাথে থাকা ২৭ শতাংশ বসতভিটা লেখে নেওয়ার অভিযোগ করেছে বৃদ্ধা রাশিদা।

রাশিদা বেগম অভিযোগ করে বলেন, শংঙ্কপুর ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ১৫১ মৌজার ৭৪৫ নং খতিয়ান দাগে ২৭ শতক জমি ২০২০ সালে প্রতারনা করে লিখে নেয়। সাইফুল ইসলামের মা মারা যাওয়ার পর থেকে দাদি তাকে লালনপালন করে বড় করে। তার সরলতার সুযোগ নিয়ে কৌশলে ধুরন্ধর সাইফুল জমি লিখে নেয়।

তার বাবা জামাত আলী বলেন, আমার ভাই এরা সবাই বাড়িতে না থাকায় আমার বোন মৃত্যু বরণ করলে মা পাগলের মতো আচরণ করতো আমার ছেলে সাইফুল সেই সুযোগে জমি ভিটা বাড়ির জমি গোপনে লিখে নিয়েছে। জমি দেখতে ক্রেতা আসলে বিষয়টি সম্পর্কে জানতে পারি।

এ ঘটনায় রাশিদা বেগম (৬৫) জানান, আমার স্বামী নুর আলী সর্দার অন্ধ হওয়াতে ও ছেলের বাড়িতে না থাকায় যশোরে ডাক্তারের কাছে নেওয়ার কথা বলে প্রথমে ৮ শতাংশ কয়েক দিন পর ফেরত দেবে বলে লিখে নেয়। পরে আবার ১৯ শতাংশ জমি লিখে নেই। বৃদ্ধা রাশিদা প্রতারক সাইফুলের কাছ থেকে তার জমি ফেরত পেতে এলাকাবাসিসহ প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন।