কালীগঞ্জে ক্লিনিক থেকে চুরি হওয়া নবজাতক উদ্ধার

Jhenidah missing child rescued

ঝিাইদহের কালীগঞ্জে চুরি হয়ে যাওয়া নবজাতক কন্যা সন্তান ১৫ ঘন্টা পর উদ্ধার করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার সকালে নিশ্চিন্তপুর দাসপাড়ার প্রিয়া খাতুন-জাহাঙ্গীর দম্পত্তির বাড়ি থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় প্রিয়া খাতুন ওরফে মিনারাকে আটক করে র‌্যাব।

আটক প্রিয়া খাতুন ও জাহাঙ্গীর ওই এলাকায় রফিকুল ইসলামের ভাড়া বাড়িতে থাকত। এর আগে সোমবার সন্ধ্যায় ইফতারের সময় কালীগঞ্জ শহরের একটি ক্লিনিক থেকে সদ্য প্রসূত এই বাচ্চাটি চুরি হয়ে যায়। শিশুটি কালীগঞ্জ পৌরসভাধিন বলিদাপাড়া ইজিবাইক চালক মনিরুল ইসলামের সন্তান। এরপর শিশুটি উদ্ধারে মাঠে নামে ঝিনাইদহ র‌্যাব ও পুলিশের পৃথক কয়েকটি টিম।

উদ্ধারের পর র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহ ক্যাম্পের কমান্ডার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামাল উদ্দিন জানান, ঘটনাটি জানার পর থেকেই চুরি হওয়া কন্যা শিশুটিকে উদ্ধারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় র‌্যাবের একাধীক টিম।

এরপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, উপজেলার নিশ্চিন্তপুর দাসপাড়ায় রয়েছে শিশুটি। পরে সেখানে অভিযান চালিয়ে প্রিয়া খাতুন-জাহাঙ্গীর দম্পত্তির বাড়ি থেকে নবজাতককে উদ্ধার করা হয়। এসময় ঘটনার সাথে জড়িত প্রিয়া খাতুনকে আটক করা হয়। তবে স্বামী পলাতক থাকায় তাকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

তিনি আরো জানান, জিজ্ঞাসাবাদে প্রিয়া জানায়, দীর্ঘদিন তাদের সন্তান হচ্ছিল না। তাই দু’জন পরামর্শ করে শিশুটিকে চুরি করেছিল। তবে, আটক প্রিয়ার দাবি, আমি বাড়ি পাশে শিশুটি পড়ে পেয়েছি।