জেএমবি সদস্য আসাদুজ্জামানের ফাঁসি কার্যকর

kasimpur

নেত্রকোনায় উদীচী কার্যালয়ে বোমা হামলার আসামি নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের সদস্য আসাদুজ্জামান পনিরের (৩৭) ফাঁসি কার্যকর করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই রাত ১১টায় গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কারাগারে তার ফাঁসি কার্যকর করা হয়। ২০০৫ সালের ৮ ডিসেম্বর নেত্রকোনায় উদীচীর অনুষ্ঠানে বোমা হামলা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদি ছিলেন আসাদুজ্জামান।

ওই হামলায় আটজনের মৃত্যু এবং অনেকে আহত হয়েছিলেন। এ ছাড়া তিনি নেত্রকোনা থানার বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ২০০৫ সালের ৭ ডিসেম্বরের একটি ২০ বছরের ঢাকার কোতোয়ালি থানার বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে হওয়া মামলায় ২০ বছরের সাজাপ্রাপ্ত ছিলেন।

আসাদুজ্জামান চৌধুরী ওরফে পনির ওরফে আসাদ ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া থানার রাধাকানাই গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে। কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার মো. গিয়াস উদ্দিন বলেন, রাত ১১টায় জল্লাদ শাহজাহান লিভারে টান দিয়ে আসাদুজ্জামানের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করেন।

গাজীপুরের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট নাছরিন পারভীন ও সিভিল সার্জনের প্রতিনিধি ডা. আশিফ রহমান ইভান এ সময় উপস্থিত ছিলেন। কাশিমপুর কারাগারের জেলার দেব দুলাল কর্মকার বলেন, আইনি প্রক্রিয়া শেষে আসাদুজ্জামানের মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পুলিশ পাহারায় স্বজনরা তার মরদেহ নিয়ে গেছেন। সূত্র : কালের কণ্ঠ।