এইচএসসির ফরম পূরণের সময় বাড়ল

student

২০২১ সালের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের সময় বাড়ানো হয়েছে। নতুন সময়সূচি অনুযায়ী আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিষ্ঠান থেকে এসএমএস পাঠাতে পারবে। আর ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ফি পরিশোধ করা যাবে।

বুধবার ২৫ আগস্ট ঢাকা শিক্ষাবোর্ড থেকে এসব তথ্য জানিয়ে নোটিশ জারি করা হয়েছে। আগের সময়সূচি অনযায়ী আজ ছিল ফরম পূরণের শেষ দিন।

নোটিশে বলা হয়েছে, এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের জন্য প্রতিষ্ঠান থেকে এসএমএস পাঠানোর সময় ৩১ আগস্ট পর্যন্ত ও শিক্ষার্থীদের ফি পরিশোধের সময় ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হলো।

কোনো কলেজ এ সময়ে শিক্ষার্থীদের ফরম পূরণে ব্যর্থ হলে দায়ভার প্রতিষ্ঠান প্রধানকে বহন করতে হবে বলেও জানিয়েছে ঢাকা বোর্ড।

গত ১২ আগস্ট থেকে এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার ফরম পূরণ শুরু হয়। ২৫ আগস্ট পর্যন্ত এসব পরীক্ষার ফরম পূরণের সুযোগ দেওয়া হলেও সে সময় আবারও বাড়ানো হলো।

বোর্ড থেকে জারি করা নির্দেশনায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঘরে বসেই অনলাইনে পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণের কার্যক্রম পরিচালনা করতে বলা হয়েছে কলেজগুলোকে। আর সোনালী ব্যাংক ও মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসের মাধ্যমে ফরম পূরণের ফি জমা দিতে হবে শিক্ষার্থীদের।

ঢাকা বোর্ড জানিয়েছে, বোর্ড ফি ও কেন্দ্র ফি বাবদ বিজ্ঞান বিভাগের এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের মোট ১ হাজার ১৬০ টাকা, মানবিক ও ব্যবসা শাখার পরীক্ষার্থীদের ১ হাজার ৭০ টাকা মোট ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।

এইচএসসি পরীক্ষার ফি বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে পত্র প্রতি ১০০ টাকা, ব্যবহারিকের ফি বাবদ পত্র প্রতি ৫ টাকা, একাডেমিক ট্রান্সক্রিপ্টের ফি বাবদ পরীক্ষার্থী প্রতি ৫০ টাকা,

মূল সনদ বাবদ শিক্ষার্থী প্রতি ১০০ টাকা, বয়েজ স্কাউট ও গার্লস গাইড ফি বাবদ ১৫ টাকা এবং জাতীয় শিক্ষা সপ্তাহ ফি বাবদ পরীক্ষার্থী প্রতি ৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর ক্ষেত্রে ১০০ টাকা রিটেনশন ফি দিয়ে ফরম পূরণ করতে হবে। এছাড়া জিপিএ উন্নয়ন ও প্রাইভেট পরীক্ষার্থীদেরও ১০০ টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে। অনিয়মিত পরীক্ষার্থীদের ১০০ টাকা সনদ ফি দিতে হবে।

পরীক্ষার কেন্দ্র ফি বাবদ প্রতি পরীক্ষার্থীকে ৩০০ টাকা ও ব্যবহারিক পরীক্ষার ব্যবস্থাপনার জন্য পত্র প্রতি ৫ টাকা ফি দিতে হবে পরীক্ষার্থীদের। ব্যবহারিক নোটবুক মূল্যায়ন ফি পত্রপ্রতি ৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

করোনা অতিমারির কারণে সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় এইচএসসি ও আলিম পরীক্ষার্থীদের নির্বাচনী পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি। এ সংক্রান্ত কোনো ফি আদায় করতে পারবে না কলেজ-মাদরাসাগুলো।

কেবল বৈধ রেজিস্ট্রেশনকারী শিক্ষার্থীরা এইচএসসি আলিম পরীক্ষার ফরম পূরণ করতে পারবেন। নিয়মিত, অনিয়মিত, আংশিক বিষয়ে ফেল করা, শুধু আবশ্যিক বিষয়ে ফেল করা,

প্রাইভেট পরীক্ষার্থী, জিপিএ উন্নয়ন পরীক্ষার্থী সবাইকেই ফরম পূরণ করতে হবে। পরীক্ষার্থী বা তার অভিভাবক এ বছর সোনালী ব্যাংকের অনলাইন পেমেন্ট সিস্টেমের মাধ্যমে ঘরে বসেই বোর্ড ফি,

কেন্দ্র ফি ও প্রতিষ্ঠানের পাওনা পরিশোধ করবেন। ফি পরিশোধের বিস্তারিত প্রক্রিয়া নির্দেশিকা ঢাকা বোর্ড ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেওয়া থাকবে। শিক্ষার্থীরা সোনালী ব্যাংক বা মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের বিকাশ, নগদ, রকেট, শিউর ক্যাশ বা উপায়ের মধ্যমে পরিশোধ করতে পারবেন।