যশোরে মাদক মামলায় বৃদ্ধা নারীর প্রবেশনে মুক্তি

jashore map

যশোরে একটি মাদক মামলায় এক বৃদ্ধা নারীর তিনবছরের কারাদন্ড প্রদান করে তাকে প্রবেশনে মুক্তি দিয়েছে আদালত।

বুধবার অতিরিক্ত জেলা জজ আবুবকর সিদ্দিক সাত শর্তে এ আদেশ দেন। শর্তমেনে প্রবেশন কর্মকর্তার অধীনে থেকে বাড়িতেই তাদের সাজা ভোগ করতে হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সংশ্লিষ্ট আদালতের এপিপি নজরুল ইসলাম বকুল ও আসামি পক্ষের আইনজীবী কাজী মসরুল মুর্শীদ বাপী।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৫ সালের ২ এপ্রিল বেলা সাড়ে ১২ টায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের অভিযানে শার্শা উপজেলার বাগুড়িয়া বেলতলা গ্রামের অজিবর রহমান ও তার স্ত্রী সুফিয়া বেগম নিজ বাড়ি থেকে ১০ গ্রাম হোরোইন সহ আটক হয়।

এ ঘটনায় বেনাপোল সার্কেলের পরিদর্শক লোকমান হোসেন বাদী হয়ে স্বামী ও স্ত্রীকে আসামি করে শার্শা থানায় মামলা করেন। মামলা চলাকালীন সময় মৃত্যুবরণ করেন অজিবর । অপর আসামি সুফিয়া বেগম নিয়মিত মামলার হাজিরা দিয়ে যান।

বৃহস্পতিবার রায় ঘোষণার দিনে আসামিকে তিনবছরের কারাদন্ড দিয়ে প্রবেশনে মুক্তি দেন। অন্যতম শর্ত গুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, আসামি অক্ষরজ্ঞানহীন হওয়ায় নিজ এলাকার বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্রে শিক্ষা গ্রহণ করবেন।

নিজ বাড়ির আঙ্গিনায় ৫টি ফলজ ও ৫টি বনজ বৃক্ষ রোপন করবেন ও নিজ ধর্মের প্রতি অনুগত থেকে ধর্মীয় অনুশাসনের মধ্যে জীবন যাপন করবেন। এছাড়াও অন্যশর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে, নিজ বাড়িতে প্রবেশন কর্মকর্তার অধীনে থাকতে হবে। সৎ ও শান্তিপূর্ন জীবন যাপন করতে হবে।

কোনো প্রকার অপরাধের সাথে জড়ানো যাবেনা। মাদকের সংস্পর্শে যাওয়া যাবেনা। দেশত্যাগ করতে পারবে না এবংও ট্রাইবুন্যাল কিংবা আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তলব করলে যথা সময়ে হাজির হতে হবে। আদেশ অমান্য করলে সাজা ভোগ করতে বাধ্য থাকতে হবে বলে আদেশে বলা হয়।