ঝিকরগাছায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পের আওতায় ২০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে খাবার বিতরণ

school food news

যশোরের ঝিকরগাছায় দরিদ্র পীড়িত এলাকায় স্কুল ফিডিং প্রকল্পের আওতায় ২০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সপ্তাহে ৩দিন দুপুরের খাবার দেয়া হচ্ছে। সপ্তাহের প্রতি শনি, সোম ও বুধবার খিচুড়ী। এরমধ্যে শনি ও বুধবার সবজী খেচুড়ী এবং সোমবার খেচুড়ীর সাথে একটি করে ডিম দেয়া হচ্ছে। এছাড়া রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার বিস্কুট পাবে।

সোমবার দুপুরে সরেজমিনে উপজেলার বামনআলী-চাপাতলা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে দেখাগেছে, সেখানে ২ শত ২০ জন শিক্ষার্থী লম্বালাইনে দাড়িয়ে খিচুড়ী ও ডিম নিচ্ছে। বিনা খরচে দুপুরের খাবার পেয়ে বেশ খুশি শিক্ষার্থীরা।

জানতে চাইলে প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক মীর মাহাবুবুর রহমান বলেন, এই প্রথা চালু হওয়ায় এখন কোন অনুপস্থিত নেই। তাছাড়া দীর্ঘ সময় না খেয়ে থাকার কারনে শিশুরা যেসকল রোগে আক্রান্ত হতো বর্তমানে সেটা নেই। শিক্ষার্থী প্রতিদিন ৯০ গ্রাম চাল, ২৫ গ্রাম ডাল, তেল ১২ গ্রাম, আলু ১৫ গ্রাম, সবজী ২০ গ্রাম, শাক ১৫ গ্রাম, হলুদ ১ গ্রাম, লবন ৩ গ্রামসহ প্রয়োজনীয় মসলা এবং (সপ্তাহে একদিন ডিম) পরিমানমত খাবার পাবে। বেসরকারী এনজিও উত্তরনের মাধ্যেমে ঝিকরগাছায় এই প্রকল্প পরিচালিত হলেও শিশুদের মানসম্মত খাবার নিশ্চিতে সরকারী ভাবে এর তদারকি করার দাবি জানিয়েছেন অভিভাবকসহ স্থানীয় সচেতনমহল।