যশোরে বিদ্যুৎ মিস্ত্রিকে অপহরনের অভিযোগ

toriqul

যশোরে তরিকুল ইসলাম নামে এক বিদ্যুৎ মিস্ত্রিকে অপহরনের অভিযোগ করেছেন তার স্ত্রী নাজমিন আরা বিথি। এ ঘটনায় অপহৃতের স্ত্রী কোতয়ালি থানা অভিযোগ দিলেও পুলিশ তাকে উদ্ধার করতে পারেনি। তবে, পুলিশের ভূমিকা নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছেন অভিযোগকারী অপহৃত তরিকুলের স্ত্রী নাজমিন আরা বিথি।

যশোর কোতয়ালি থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে নাজমিন আরা বিথি উল্লেখ করেছেন, তার স্বামী চৌগাছা উপজেলার ফুলসারা গ্রামের হাবিব মন্ডলের ছেলে। যশোর শহরের আরবপুর গোরা পাড়ার মতিউর রহমানের বাড়ির ভাড়াটিয়া তরিকুল ইসলাম ২৫ জুন আরবপুর বালির মাঠের পাশে জুয়েলের বাড়িতে ওয়ারিংয়ের কাজ করছিলেন। তার সহযোগী হিসেবে ছিলেন ইনছান। বিকেলে অজ্ঞাত পরিচয়ে ৪জন এসে তাকে নিয়ে সাদা রংয়ের নাম্বার বিহীন একটি মাইক্রো বাসে জোর করে তুলে নিয়ে যায়। এর কিছু সময়ের পর বাড়ির মালিক জুয়েল, সহযোগী ইনছান তাদের মোবাইল দিয়ে তরিকুলের মোবাইলে ফোন দিলে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়। রাত ৮টার দিকে তরিকুল বাড়িতে ফিরে না আসায় বিভিন্ন জায়গায় খোঁজ করলেও তাকে পাওয়া যায়নি।
পরের দিন ২৬ জুন কোতয়ালি থানায় অভিযোগ দেয়া হয় বলে জানন নাজমিন আরা বিথি।

তিনি বলেন, চলতি বছরের জানুয়ারির প্রথম দিকে তরিকুলকে অজ্ঞাত পরিচয়ে আরো একবার তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। ওই সময় আরো কয়েকজনকে তুলে নিয়ে যাওয়ার পর র‌্যাবের খুলনা অফিস অপহৃতদের আল্লার দলের সদস্য বলে আটক দেখায়। এসময় তরিকুলকে ছেড়ে দেয়া হয়।

তিনি আরো জানান, এবার তরিকুল ইসলামকে অপহরণ করার পর খুলনা ডিবি পুলিশ, র‌্যাব অফিসে যোগাযোগ করেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। পরে মঙ্গলবার ৩০ জুন যশোর কোতয়ালি মডেল থানায় জিডি এন্ট্রি করা হয়েছে। যার নম্বর-১৫৪২।

এ ব্যাপারে যশোর কোতয়ালি থানায় ওসি মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে জানাতে পারবো।