বিশ্ববিদ্যালয় খুলছে ২৭ সেপ্টেম্বরের পর

job

করোনা ভাইরাসের কারণে দেড় বছরের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর অবশেষে বিশ্ববিদ্যালয় খুলতে যাচ্ছে। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের টিকার রেজিস্ট্রেশন কাজ শেষ করার পর ধাপে ধাপে বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলে দেয়া হবে।

মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজিত বৈঠক এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

আজ সকাল সাড়ে ১০টায় ভার্চুয়াল মাধ্যমে এ বৈঠক শুরু হয়। শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান ছাড়াও বৈঠকে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ,

কোভিড-১৯ সম্পর্কিত কারিগরি উপদেষ্টা কমিটি, ফেডারেশন অব বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি, স্বাস্থ্য অধিদফতরসহ সংশ্লিষ্ট অধিদফতরের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়ের বলেন, আগামী ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের টিকার রেজিস্ট্রেশন কাজ শেষ করতে হবে।

এরপর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাদের একাডেমিক কাউন্সিলের অনুমোদনক্রমে বিশ্ববিদ্যালয়ে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করতে পারবে। বিশ্ববিদ্যালয় চাইলে তাদের আবাসিক হল খুলে দিতে পারবে।

তবে সেক্ষত্রে স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে স্বাস্থ্যকেন্দ্র স্থাপন করে টিকা দেওয়া কার্যক্রম শুরু করতে হবে। এর আগে গত ২৬ আগস্ট করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার বিষয়ে দেশে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গঠিত টেকনিক্যাল কমিটির সঙ্গে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের বৈঠকে ধাপে ধাপে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।