প্রতিদিন ১৫ লাখ ডোজ টিকা দেয়া হচ্ছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

jahid malak
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ফাইল ছবি

বাংলাদেশ সরকার প্রায় ২১ কোটি টিকা কিনেছে। প্রতিদিন দেশে ১৫ লাখ টিকা প্রদান করা হচ্ছে। যদিও ৮০ লাখ দেবার সক্ষমতা আছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী ডা. জাহিদ মালেক।

তিনি বলেছেন, দেশে করোনাভাইরাসের মৃত্যুর হার কমেছে, একে শূন্যের কোঠায় নিয়ে আসা হবে।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সৌদি সরকার কর্তৃক ৩২ লাখ ডোজ টিকা সরবরাহ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় বাংলাদেশকে সৌদি সরকারের কিং সালমান হিউম্যানটারিয়ান এন্ড রিলিফ সেন্টারের উপহার ১ দশমিক ৫ মিলিয়ন অ্যাস্ট্রোজেনেকার ভ্যাকসিন

এবং ১ মিলিয়ন ডলার মূল্যের চিকিৎসা সরঞ্জাম হস্তান্তর করা হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সালমান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে আমাদের টিকা প্রদান করেছে। বাংলাদেশকে সহযোগিতা করায় সৌদি সরকার এবং জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞ। বিনামূল্যে ১৫ লাখ অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকা।

ভ্রাতৃপ্রতীম সৌদি আরব সব সময়ই বাংলাদেশের সাথে থেকেছে আর ভবিষ্যতেও থাকবে। সিনোফার্ম টিকা নেয়া শ্রমিকদের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে এমন প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব ৪টি ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছে।

তবে তাদেরকে অনুরোধ করা হয়েছে যাতে অন্যান্য ভ্যাকসিনের মতো সিনোফার্মের টিকা গ্রহীতাদেরও যেন সেই সুবিধা দেয়া হয়। যদি বুস্টার ডোজ প্রয়োজন হয় তাহলে দেয়া হবে। বাংলাদেশে টিকা দেয়া সম্পন্ন হলে বুস্টার ডোজ নিয়ে ভাবা হবে।

শুধু প্রবাসীদের দেয়া হবে। এখন এ নিয়ে চিন্তা ভাবনা করা হচ্ছে। বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত এসা ইউসুফ আল দোহাইলি বলেন, করোনা বৈশ্বিক সংকট। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে এক সাথে লড়তে হবে এই মহামারীর বিরুদ্ধে।

বন্ধুত্বের নির্দশন হিসেবে সৌদি সরকারের এই উপহার বাংলাদেশের জনগণের প্রতি। এ সময় তিনি চীনের তৈরি করোনা টিকা অনুমোদনের বিষয়ে সৌদি সরকার ভাবছে বলে জানান।