পুলিশ-র‌্যাব রেখে রাস্তায় নামুন দেখিয়ে দেব: আ’লীগকে মঈন খান

moyen khan
ফাইল ছবি

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আব্দুল মঈন খান বলেছেন, গত ১২ বছরে ৩৫ লাখ বিরোধী নেতাকর্মী বিরুদ্ধে এক লাখ এক হাজার মামলা দেয়া হয়েছে। অথচ সরকার মশকরা করে বলে বিএনপি আন্দোলন করতে জানে না। আপনারা আওয়ামী লীগ তো আন্দোলন করতে জানেন, তাহলে পুলিশ-র‌্যাবকে ব্যারাকে রেখে রাজপথে নামুন- তখন দেখিয়ে দেব বিএনপি আন্দোলন করতে জানে কিনা।

বুধবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ সব কথা বলেন। ‘বর্তমান প্রেক্ষাপটে ভোটের অধিকার ও গণতন্ত্র’ শীর্ষক সভার আয়োজন করে অন্তরে মম শহীদ জিয়া নামের একটি সংগঠন।

আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে মঈন খান বলেন, প্রশাসন দিয়ে ক্ষমতায় থাকা যায়, কিন্তু মানুষের অন্তরে কোনো দিন স্থান পাওয়া যায় না। হুমকি-ধমকি দিয়ে মানুষকে ভয় দেখানো যায়, কিন্তু কোনো দিন মানুষের মন জয় করা যায় না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের জন্মলগ্ন থেকে ইতিহাস দেখুন। তারা চিরদিন একই নীতিতে চলছে। তারা মানুষকে ভয় দেখিয়ে, মানুষকে নির্যাতন-অত্যাচার করেছে। ২০০৬ সালে কীভাবে লগি-বৈঠা দিয়ে রাস্তায় মানুষকে হত্যা করা হয়েছিল। বিএনপি সেই নির্যাতন-অত্যাচারে বিশ্বাস করে না। আমরা শান্তিপূর্ণ, গণতান্ত্রিক ও উদারনৈতিক একটি রাজনৈতিক দল। আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী। আমরা ভোটের অধিকারে বিশ্বাসী।’

মঈন খান বলেন, ভোটের মাধ্যমে এ দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে। ভোটের মাধ্যমে এ দেশের ক্ষমতার পট পরিবর্তন করতে হবে। আর সেই বিশ্বাসে বিশ্বাসী হয়ে আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে এ দেশের পরিবর্তন চাই।

তিনি বলেন, গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকা যায় সেটা আমরা স্বীকার করছি। পৃথিবীর ইতিহাসে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দেশে অত্যাচার-নির্যাতন চালিয়ে স্বৈরাচারী ফ্যাসিস্টরা ক্ষমতা দখল করেছিল, কিন্তু তারা কোনো সময় চিরদিন টিকে থাকতে পারেনি। এটাই হচ্ছে প্রকৃত সত্য এবং প্রকৃত ইতিহাস।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, আজকে আন্দোলনের মাধ্যমে আমাদের গণতন্ত্রের পূজারি আপসহীন নেত্রী দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে আনব। তাকে মুক্ত করে এনে তার নেতৃত্বে পুনরায় এ দেশে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনবই, ইনশাল্লাহ।

আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা ঢালী আমিনুল ইসলাম রিপনের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন- নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সাদস্য আবু নাসের মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ, কৃষক দলের সাদস্য লায়ন মো. আনোয়ার, কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন প্রমুখ।