মমেকের করোনা ইউনিটে শিশুসহ ১১ জনের মৃত্যু

Corona virus

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় শিশুসহ ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে চারজন করোনায় এবং সাতজন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

সোমবার ২৩ আগস্ট বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান মুন। তিনি জানান, রোববার সকাল ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৮টার মধ্যে করোনায় মারা যাওয়া চারজনের সবাই ময়মনসিংহের বাসিন্দা।

তারা হলেন- ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের দুই মাস বয়সী শিশু হুজাইফা, সদরের জামেলা খাতুন (৮৬), নান্দাইলের সালেমা খাতুন (৯০) ও ঈশ্বরগঞ্জেরআব্দুস সালাম (৫৫)।

হুজাইফা গফরগাঁও উপজেলার মুখলেছ-বিলকিস দম্পতির দুই মাসের শিশু। তাকে দুই দিনের জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ১১ আগস্ট হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়।

এরপর ১৪ আগস্ট নমুনা পরীক্ষায় তার পজিটিভ আসে। ওইদিনই তাকে করোনা ইউনিটে স্থানান্তর করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার (২২ আগস্ট) বিকেল সোয়া ৩টায় মারা যায় সে।

এ ছাড়াও ওই সময়ের মধ্যে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া সাতজনের মধ্যে ছয়জনই ময়মনসিংহ জেলার। অন্যজন গাজীপুরের বাসিন্দা। তারা হলেন- ময়মনসিংহ সদরের সেলিনা আক্তার (৪৫),

ফৌজিয়া খাতুন (৪৫), ভালুকার গোলাপী বেগম (৫০), মো. জুয়েল (২৮), ত্রিশালের আছিয়া খাতুন (৫৫), নান্দাইলের রাবেয়া খাতুন (৮০) ও গাজীপুর সদরের নূরজাহান বেগম (৭০)।

ডা. মুন আরও জানান, ইউনিটটিতে বর্তমানে রোগী ভর্তি আছেন ১৯৭ জন। এর মধ্যে ১৮ জন আইসিইউতে আছেন। ওই সময়ে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ১৪ জন ও সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৩৭ জন।

জেলায় এক দিনে ৭৭৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৩৮ জনের করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৮২ শতাংশ বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম।