করোনার ট্যাবলেট বাজারজাত শুরু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

jahid malak
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন। ফাইল ছবি

করোনা ভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসায় ব্যবহারের জন্য দেশে ট্যাবলেট বাজারজাত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে মানিকগঞ্জ ডায়াবেটিক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বৃহস্পতিবার থেকে দেশে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য নির্মাট্রেলভির এবং রেটিনোভির ট্যাবলেট বাজারজাত শুরু হয়েছে। এই ওষুধ ভ্যাকসিনের বিকল্প নয়। ভ্যাকসিনের কাজ ভ্যাকসিন করবে এবং ভ্যাকসিন নিতে হবে।

ভ্যাকসিন নেবেন, যারা করোনায় আক্রান্ত হননি তারা, আর এই ওষুধ খাবেন, যারা আক্রান্ত হয়েছেন।কিন্তু যারা আক্রান্ত হননি, তারা এই ওষুধ খেতে পারবেন না।

তিনি বলেন, করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য নির্মাট্রেলভির এবং রেটিনোভির ট্যাবলেটটি ৮৮ ভাগ কার্যকর হবে। তবে ১২ বছরের ওপরে যারা মৃদু আর মাঝারিভাবে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, তাদের জন্য এই ওষুধ উপযোগী।

এই ওষুধের ফলে হাসপাতালে রোগী ভর্তির প্রয়োজনীতা ৮৮ ভাগ কমে যাবে এবং মৃত্যুর হারও কমে যাবে। ওষুধের দামের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, এই ট্যাবলেটের একটি ডোজের মূল্য ৩ হাজার ২০০ টাকা এবং একটি ডোজে তিনটি ওষুধ থাকবে।

এটা প্রতিদিন খেতে হবে এবং একটানা পাঁচ দিন খেতে হবে। অর্থাৎ একজন রোগীকে ৩০টি ট্যাবলেট খেতে হবে। যার দাম হবে ১৬ হাজার টাকা।

তিনি বলেন, পৃথিবীর কোনো দেশে করোনার যে চিকিৎসা বা ওষুধ বের হয় আমরা তাড়াতাড়ি সেই ওষুধটি আমাদের দেশে নিয়ে আসি। মাত্র এক সপ্তাহ আগে আমেরিকায় এই ওষুধ বের হয়েছে

এবং মাত্র দশ দিনের মাথায় আমরা সেটি আমাদের দেশে বাজারজাত করতে পারছি। এটাও আমাদের জন্য বিরাট সুখবর দেশবাসীর জন্য।