যশোরের শার্শায় ছিনতাই হওয়া টাকাসহ তিন ছিনতাইকারী আটক

jessore cinty atok news

যশোরের শার্শায় ছিনতাই হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে টাকা উদ্ধার ও তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে পুলিশ।

আটককৃতদের কাছ থেকে একটি ওয়ান শ্যুটারগান ও ছিনতাই কাজে ব্যাবহ্নত পালছার মটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছে বেনাপোল পোর্ট থানার সাদিপুর গ্রামের আহসানের ছেলে সুমন (২৫), একই গ্রামের আবু তৈয়ব মোড়লের ছেলে আনোয়ার (২৫) ও ভবেরবেড় গ্রামের নুরুর ছেলে নোমান (১৯)।

বুধবার রাতেই তাদের গ্রেফতার ও ছিনতাই হওয়া টাকার মধ্যে ৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা উদ্ধার করে পুলিশ। আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার তার কনফারেন্স রুমে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ সব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বুধবার বেলা পৌনে ১২টার দিকে বেনাপোলের ব্যবসায়ী শরীফের কর্মচারী শিমুল হোসেন টুটুল শার্শা উপজেলার নাভারণ এলাকার ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংক থেকে ১৩ লাখ ৮০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। এরপর টাকাসহ মোটরসাইকেলে করে যাচ্ছিলেন ব্যাংকের বেনাপোল শাখায় জমা দিতে। ওইসময় শরীফ তাকে ব্যাংকে ৬ লাখ টাকা জমা এবং ৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা নিয়ে যেতে বলেন। টুটুল ৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা নিয়ে যাওয়ার সময় শার্শার মাঠপাড়া গ্রামে নুর হোসেনের বাড়ির সামনে পৌঁছালে সুজন, আনোয়ার ও নোমান তার কাছ থেকে ওই টকা ছিনিয়ে নেয়। খবর পেয়ে পুলিশ সুপারের নির্দেশে গোয়েন্দা পুলিশ ও শার্শা পুলিশ মাঠে নামে। তারা প্রযুক্তি ব্যবহার করে ওই তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। একইসাথে ছিনতাই হওয়া টাকার মধ্যে ৭ লাখ ৬৪ হাজার টাকা উদ্ধার করেন। পুলিশ তাদের কাছ থেকে একটি ওয়ান শ্যুটারগান উদ্ধার করে।

তিনি বলেন, তিনতাইকারী সুজনের বিরুদ্ধে হত্যাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। এছাড়া ছিনতাইয়ের ঘটনায় শার্শায় আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে অন্যাদের মধ্যে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ সালাহউদ্দিন সিকদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোহাম্মাদ তৌহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক) সার্কেল গোলাম রব্বানী শেখ, শার্শা থানার ওসি বদরুল আলী, ডিএসবির ইন্সপেক্টর মো মশিউর রহমান, ডিবির ওসি সোমেন দাশ উপস্থিত ছিলেন।